নিজেদের মাটিতে অসহায় ভারত

Sri_India1455041284ক্রীড়া ডেস্ক : আইসিসি টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ দল ভারত। গত এক মাস আগেও ভারত ছিল র‌্যাকিংয়ের তলানিতে। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয় করে এক লাফে এক নম্বরে ওঠে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল।

র‌্যাকিংয়ে লাফ দেওয়ার পাশাপাশি আত্মবিশ্বাসও বেশ বেড়ে যায় ভারতের। অসিদের হারানোর সুখস্মৃতি নিয়ে নিজেদের মাটিতে লঙ্কানদের বিপক্ষে খেলতে নামে ভারত। তবে সিরিজের শুরুতেই বড় ধাক্কা খেতে হলো স্বাগতিকদের। টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম পরীক্ষায় ভারত হেরেছে ৫ উইকেটের বড় ব্যবধানে।

পুনেতে ব্যাটিংয়ে ব্যর্থতা ভারতকে ডুবিয়েছে। ওপেনিংয়ে নামা রোহিত শর্মা থেকে শুরু করে আটে নামা রবীন্দ্র জাদেজা- কেউই ভারতের স্কোরকে বড় করতে পারেননি। নয়ে নামা রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে ধন্যবাদ জানানো উচিত। তার ক্যারিয়ার সেরা ৩১ রানের ইনিংসে ভর করে শতরানের ওপরে স্কোরকে নিয়ে যায় টিম ইন্ডিয়া। তা না হলে সর্বনিম্ন রানের লজ্জা নিজেদের মাটিতেই পেতে হতো ধোনিদের। এর আগে অশ্বিনের সর্বোচ্চ রান ছিল ১৭, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২০১১-২০১২ সালে।

অশ্বিনের ৩১ রানের আগে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০ রান করেন সুরেশ রায়না। যুবরাজ সিং করেন ১০ রান। এ ছাড়া অন্য কোনো ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছাতে পারেননি। সবকটি উইকেট হারিয়ে ১০১ রানে গুটিয়ে যায় শীর্ষে থাকা ভারত। বিশ্রামে থাকা বিরাট কোহলির অভাব খুব ভালোমতোই টের পেয়েছেন ধোনি ও রায়নারা।

লঙ্কানদের হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন কাসুন রাজিথা ও ডাসুন শাঙ্কা। ডানহাতি পেসার কাসুন রাজিথা অভিষেক ম্যাচে ৪ ওভারে ২৯ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন।

ভারতের মতো ব্যর্থ হয়েছে শ্রীলঙ্কার ব্যাটিংও। লো স্কোরিং ম্যাচ জিততেও তাদের অপেক্ষা করতে হয়েছে ১৮ ওভার পর্যন্ত। অভিজ্ঞ দিনেশ চান্দিমাল ও চামারা কাপুগেদারার দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে জয় পায় লঙ্কানারা। অধিনায়ক চান্দিমাল ৩৫ ও কাপুগেদারা ২৫ রান করেন। ২১ রান করেন মিলিন্দা সিরিবর্ধনে। ৫ উইকেট ও ১২ বল হাতে রেখে জয় পায় লঙ্কানরা। প্রথম ম্যাচ জিতে ৩ ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে শ্রীলঙ্কা।

-রাইজিংবিডি

 

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like