সাত সমস্যা দূরে রাখতে আঙুর

angor pic-1স্বাস্থ্য ডেস্ক: শীতের এই সময়টা এলে বাজার ভরে যায় নানা রকম ফলে। সুস্বাদু আঙুরের মৌসুমও এটাকে ধরা চলে। বছরের অন্যান্য সময়ের চেয়ে এখন তুলনামূলক কম দামে এবং তরতাজা আঙুর পাওয়া যায়। তাইতো ছোট বড় সবার পছন্দের এই ফলটি খাওয়া হয় একটু বেশি বেশিই। আমাদের দেহকে সুস্থ রাখতেও ফলটিতে আছে উপকারী অনেক উপাদান। আঙুর ভিটামিন এ, বি৬, বি, ফোলেট, পটাশিয়াম, আয়রন, সেলেনিয়াম, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, ম্যাগনেসিয়াম ইত্যাদি মিনারেলসে ভরপুর। আর একারণেই প্রতিদিন মাত্র ৫০ গ্রাম আঙুর খেয়ে দূর করতে পারেন নানা শারীরিক সমস্যা। জেনে নিন মানব দেহের জন্য মারাত্মক সাত সমস্যা দূরে রাখতে আঙুরের ভূমিকা সম্পর্কে।

ক্যানসার প্রতিরোধ: আঙুরের পাতলা খোসায় রেসভেরাট্রোল নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদানের দেখা মেলে। গবেষণায় দেখা যায় এই রেসভেরাট্রোল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট দেহে ক্যানসারের কোষ গঠন করতে বাধা দেয়।

হাড়ের ভঙ্গুরতা রোধ: আমেরিকান সোসাইটি অফ বোন অ্যান্ড মিনারেলস রিসার্চের মতে আঙুর মাইক্রো নিউট্রিইয়েন্টস যেমন- ক্যালসিয়াম, আয়রন এবং ম্যাংগানিজে ভরপুর একটি ফল। এই ফলটি হাড়ের সঠিক গঠন এবং মজবুত হওয়ার জন্য অত্যন্ত জরুরি। প্রতিদিন আঙুর খেলে হাড়ের যেকোনো ধরণের সমস্যা এবং বয়স জনিত রোগ থেকে মুক্ত থাকা সম্ভব। বিশেষ করে হাড় ক্ষয় এবং বাতের ব্যথা জাতীয় সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে আঙুরের তুলনা হয় না।

হৃদপিণ্ড সুস্থ রাখে: আঙুরের ফাইটোকেমিক্যাল হৃদপিণ্ডের পেশির ক্ষতি নিজ থেকেই পূরণে বিশেষভাবে সহায়তা করে থাকে। প্রতিদিন আঙুর খেলে হৃদপিণ্ডের সুস্থতা এবং দেহের কলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।

হজম বৃদ্ধি ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর: আঙুরে থাকা অর্গানিক এসিড, চিনি এবং সেলুসাস উপাদান গুলি কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে বিশেষভাবে কার্যকরী। এছাড়াও আঙুরে থাকা প্রচুর পরিমাণে ইনস্যলুবেল ফাইবার আমাদের পরিপাকনালী পরিষ্কার রাখে। তাইতো ডাক্তাররা কোষ্ঠকাঠিন্যের রোগীদের নিয়মিত আঙুর খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

দুর্বলতা প্রতিরোধ: রক্তস্বল্পতা বা রক্তে হিমোগ্লোবিনের স্বল্পতা আমাদের দেশে খুব সাধারণ একটি ব্যাপার। রক্তস্বল্পতার কারণে দুর্বলতা, অল্পতেই হাঁপিয়ে ওঠার প্রবণতা দেখা দেয়। এই সমস্যার সমাধান করে আঙুর। আঙুরের আয়রন এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় মিনারেল রক্তের হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বাড়াতে সাহায্য করে। সুতরাং প্রতিদিন আঙুর খাওয়ার অভ্যাস করুন।

কিডনির সমস্যা দূর: আঙুরের ইউরিক এসিডের এসিডিটি কমিয়ে দেয়ার ক্ষমতা রয়েছে। এটি আমাদের পরিপাকতন্ত্র থেকে এসিডের মাত্রা কমিয়ে দেয় এবং কিডনির ওপর চাপ কমায়। এছাড়া আঙুর পানি জাতীয় ফল হওয়ার কারণে কিডনি পরিষ্কারের কাজে সাহায্য করে এবং কিডনির যেকোনো সমস্যা থেকে আমাদের মুক্ত রাখে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়: দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা উন্নত থাকলে দেহে কোনো রোগ বাসা বাঁধতে পারে না। আঙুরে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ফ্লেভানয়েড, মিনারেল, ভিটামিন সি, কে এবং এ। এইসবই আমাদের দেহের ইমিউন সিস্টেম অর্থাৎ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা উন্নত করতে সহায়তা করে। তাই সুস্থ থাকতে প্রতিদিন আঙুর খাবার অভ্যাস করতে পারেন।

-বাংলামেইল

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like