নাশকতার মামলায় বিএনপি-জামায়াতের ১৫ নেতাকর্মীর যাবজ্জীবন

বাংলামেইল: নাশকতার মামলায় সিরাজগঞ্জ জেলা যুবদলের সভাপতি আবু সাঈদ সুইট ও সদর উপজেলার খোকশাবাড়ি ইউনিয়ন ছাত্রশিবিরের সভাপতি মিজানুর রহমানসহ বিএনপি-জামায়াতের ১৫ নেতাকর্মীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

প্রত্যেকের ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে। এছাড়া ২৮ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার রাজশাহী দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক গোলাম আহমেদ খলিলুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

মামলার বিবরণীর তথ্য অনুযায়ী, দশম সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশব্যাপী হরতাল-অবরোধ চলাকালে ২০১৩ সালের ১১ ডিসেম্বর আসামিরা নাশকতা সৃষ্টির লক্ষ্যে সিরাজগঞ্জ থানার ফকিরতলা এলাকার সরকারি বেইলি ব্রিজে ৩টি পাটাতন উপড়ে ফেলে। এতে জনসাধারণের চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। একইসঙ্গে পরপর কয়েকটি ককটেল ও হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে মানুষের মনে আতঙ্কের সৃষ্টি করে।

এ ঘটনায় ওই দিনই সিরাজগঞ্জ জেলার সদর থানায় মামলা দায়ের করেন উপপরিদর্শক ফারুক হোসেন। এজাহারে ৪০ জন আসামি থাকলেও ২০১৪ সালের ৩ জুন মামলার চার্জশিটে আসামি করা হয় ৬০ জনকে। ২০১৫ সালের ১২ অক্টোবর মামলাটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তর হয়।

মঙ্গলবার রায় প্রকাশের দিনে ৩৫ জন আসামি উপস্থিত ছিলেন। যার মধ্যে যাবজ্জীবনপ্রাপ্ত আসামিদের মধ্যে হামিদ রায় নামে একজন আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

যাবজ্জীবন সাজা পাওয়া আসামিরা হলেন- সিরাজগঞ্জ সদর থানার চক ব্রক্ষণগাঁতী গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে মিজানুর রহমান, খলিশাকুড়া গ্রামের মালেক মাওলানার ছেলে কাইউম মুন্নি, খলিশাকুড়া খিচুড়িপাড়া গ্রামের মৃত শমসের আলীর ছেলে মোকলেসুর রহমান, আনোয়ার হোসেনের ছেলে রিয়াজ হাসান রাজু, চন্দ্রকোণা গ্রামের গোলাম কাদেরের ছেলে চাঁন মিয়া শেখ, আবুল কামলামের ছেলে শাহ আলম, চর ছনগাছা গ্রামের শহিদের ছেলে সুমন, সুলাইমান শেখের ছেলে হামিদ, ঘোড়াচড়া এলাকার আজিজুল সরকারের ছেলে মোমিন, আমলাপাড়া এলাকার আব্দুস সালামের ছেলে আবু সাইদ সুইট, নতুন ভাঙা বাড়ি দক্ষিণপাড়া এলাকার আমির হোসেনের ছেলে সবুজ, জারিলা পোড়াবাড়ি এলাকার সুজাবদ আলীর ছেলে আনিসুর রহমান, পূর্ব মোহনপুর এলাকার ইদ্রিস আলীর ছেলে আব্দুল আলিম ওরফে ডাকাত আলিম, আব্দুল করিমের ছেলে বাবু ওরফে ডাকাত বাবু, ধানবান্ধি জেসি রোড এলাকার নুরুল ইসলমের ছেলে মোতালেব ওপফে তালেব।

১৩ জনকে ৫ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৩ মাস সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এরা হলো- শিলন্দা এলাকার মোসলেমের ছেলে শফি, হোসেনপুর বউবাজার এলাকার গুটু শেখের ছেলে হাকু, আমলাপাড়া এলাকার মজিবুর রহমানের ছেলে আলমগীর আলম ওপফে প্যাটেল আলম, দৌলতপুর খোকশাবাড়ি এলাকার মৃত রাকিব উদ্দিন শেখের ছেলে জুড়ান আলী, একডালা শহর এলাকার জয়েনউদ্দিন ভূইয়ার ছেলে লুৎফর ভূইয়া, পুরাতন শৈলাবাড়ি এলাকার মৃত আজাহার আলীর ছেলে বাবুল শেখ, হাট সারটিয়া এলাকায় আজাহার মোল্লার ছেলে সানোয়ার হোসেন, গাছাবাড়ি এলাকার মৃত মানিক চাঁদের ছেলে আলেক চাঁদ, বাঐতারা এলাকার হাসেম সরকারের ছেলে ইসমাইল হোসেন, খোকসাবাড়ি হাটখোলা এলাকার মৃত ইসমাইলের ছেলে মোস্তাকিম, নুরুল ইসলামের ছেলে আলমগীর হোসেন, ধানবান্দি জেসি রোড এলাকার জুলমত শেখের ছেলে জিয়া হাসান ওরফে জন ওরফে জনি, আবুল হোসেনের ছেলে মেহেদী হাসান পাপ্পু।

রায় ঘোষণার সময় পাপ্পু, জনি ও ইসমাইল হোসেন ছাড়া বাকি আসামিরা উপস্থিত ছিলেন।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like