আইএস সম্পর্কে বাংলাদেশকে তথ্য দিতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

kamal

আইএস সম্পর্কে বাংলাদেশকে তথ্য দিতে চায় যুক্তরাষ্ট্র। আর তাতে স্বাগত জানিয়েছে বাংলাদেশ।

মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে মার্কিন রাষ্ট্রদূত ও যুক্তরাজ্যের হাই কমিশনারের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে আইএস নেই, হুমকি আছে। তবে বাংলাদেশের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী, গোয়েন্দা সংস্থা ও জনগণ এ বিষয়ে সতর্ক।

বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া স্টিফেন ব্লুম বার্নিকাট এবং দুপুর ১টা থেকে ২টা পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের হাইকমিশনার অ্যালিসন ব্লেইক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন।

বৈঠকে মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাসবাদ নিয়ে আলোচনা হয়।

দীর্ঘ আলোচনার পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাষ্ট্র আইএস সম্পর্কে তথ্য দিতে চায়। তারা জানতে চায় বাংলাদেশ কীভাবে সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলা করছে।

আইএস ইন্দোনেশিয়া পর্যন্ত গেছে, বাংলাদেশের আসতে পারে- এমন তথ্য দিয়েছেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত। তাই তারা আইএস-এর মিশন ও ভিশন সম্পর্কে তথ্য দিতে চায়।

এ প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমি যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলাম, তখন আমাদের তাদের স্টেট ডিপার্টমেন্ট ও এফবিআই আমাকে বলেছিল তোমাদের দেশে জঙ্গিবাদ ও আইএস তৎপরতার যে সম্ভাবনা রয়েছে তার বিষয়ে কিছু তথ্য দেবো। আমি তাদের সঙ্গে কর্মসূচি ঠিক করতে পারিনি। সে কারণে তাদের বাংলাদেশে আসার আমন্ত্রণ জানিয়েছিলাম।

আমি দেখা করেছি পিটার লেভয়ের সঙ্গে, যিনি মার্কিন প্রেসিডেন্টের স্পেশাল এনভয়। এ অঞ্চলের বিষয়গুলো দেখেন এবং তিনি প্রেসিডেন্টকে সহযোগিতা করেন। তার সঙ্গে আমাদের ঘণ্টাখানেক কথা হয়েছে।

তিনি জানতে চেয়েছিলেন, আমরা (বাংলাদেশ) কীভাবে সন্ত্রাস মোকাবিলা করছি। রাজনৈতিক অবস্থান জানতে চেয়েছিলেন। এসব বিষয় নিয়ে আমাদের কথা হয়েছে। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নিজেরাই ঘুরে দাঁড়িয়েছি।

সন্ত্রাসবাদ নিয়ে আলোচনা হয়েছে উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আবারও আইএস নিয়ে কথা হচ্ছে। আমি জানিয়েছি এখানে আইএস নেই। রাষ্ট্রদূত বলেছেন আইএস কী করতে চায়, কোথা থেকে কোথায় যায় তা জানানোর জন্য আমাদের (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র) একজন বিশেষজ্ঞ আসতে পারে। তিনি তথ্য দিতে পারবে।

আমি বলেছি, আমাদের তথ্য আদান-প্রদানে সুযোগ-সুবিধা রয়েছে। এটিই ছিলো মূল কথা।
দেশে সন্ত্রাসবাদের হুমকি রয়েছে কিনা জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমিতো মনে করি সারা দুনিয়ায় সন্ত্রাসবাদের মুখোশ উন্মোচন হয়েছে।

আইএস ও জঙ্গিবাদের হুমকি আছে কিনা জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, হুমকি নেই তা কখনও বলবো না। হুমকি ছিলো, আছে। তবে আমাদের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী, গোয়েন্দা সংস্থা ও জনগণ এ ব্যাপারে সচেতন।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like