পুলিশকে জনগণের বন্ধু হতে বললেন রাষ্ট্রপতি

images

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর: পুলিশের প্রতিটি সদস্যকে জনগণের বন্ধু হয়ে উঠার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ।

বার্ষিক পুলিশ সপ্তাহ-২০১৬ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) বঙ্গভবনের দরবার হলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে পুলিশ কর্মকর্তাদের প্রতি রাষ্ট্রপতি এ আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রপতি আরও বলেন, পুলিশের প্রতিটি সদস্যকে জনগণের বন্ধু হয়ে উঠতে হবে, যেন তারা পুলিশকে তাদের আস্থায় নিতে পারে এবং সাহায্যের প্রত্যাশায় এগিয়ে আসে। জনগণের দেওয়া করের টাকায় দেশ ও সরকার পরিচালিত হয়। সুতরাং সব ক্ষেত্রে জনগণের কল্যাণের বিষয়ে অগ্রাধিকার দিতে হবে। বিশেষভাবে মনোযোগী হতে হবে দায়িত্ব পালনকালে যাতে কোনো লোক হয়রানির শিকার না হয়।

জনগণের কল্যাণে পুলিশ সদস্যদের আরও নিবেদিত হতে হবে। আপনাদের মনে রাখতে হবে, জনগণের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রধান দায়িত্ব, যোগ করেন তিনি।

তিনি বলেন, সমাজে আইন-শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠায় পুলিশ ও জনগণের মধ্যে সহযোগিতা ও অংশীদারীত্ব দরকার। দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বজায় রাখা এবং আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশের পুলিশের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই পুলিশের প্রত্যেক সদস্যকে দেশের সার্বিক উন্নয়ন ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার পাশাপাশি সামাজিক শান্তি ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় অত্যন্ত দৃঢ়তার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদ প্রসঙ্গে আবদুল হামিদ বলেন, সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদ এখন কোনো একটি অঞ্চলের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয় বরং এখন এটি বৈশ্বিক সমস্যা। প্রযুক্তিভিত্তিক অপরাধ মোকাবিলায় প্রযুক্তিনির্ভর পুলিশি ব্যবস্থার কোনো বিকল্প নেই।

সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদ দমনে পুলিশের কর্মকৌশল ও সাফল্য ইতোমধ্যে জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে প্রশংসিত হয়েছে এবং আগামীতেও পুলিশ সদস্যরা আরও আন্তরিকতার সঙ্গে তাদের দায়িত্ব-কর্তব্য পালন করবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মোজাম্মেল হক ও পুলিশের মহাপরিদর্শক এ কে এম শহীদুল হক।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like