নেতাকর্মীদের রাজপথে থাকার নির্দেশ দিল নগর আ’লীগ

Amir_Photo_BG_609673225

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর: চট্টগ্রামে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরের দিন নেতাকর্মীদের সার্বক্ষণিকভাবে রাজপথে থাকার নির্দেশ দিয়েছে নগর আওয়ামী লীগ।

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) নগরীর থিয়েটার ইনস্টিটিউটে নগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা থেকে এ নির্দেশনা এসেছে।  সভায় প্রধানমন্ত্রীর চট্টগ্রাম সফর সফল করার বিষয়ে আলোচনা হয়।

৩০ জানুয়ারি শনিবার প্রধানমন্ত্রী সেনাবাহিনীর কর্মসূচীতে যোগ দিতে চট্টগ্রামে আসবেন।  এদিন প্রধানমন্ত্রী সিডিএ’র বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প এবং ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের উদ্বোধন করবেন।

সভায় সভাপতিত্ব করেন নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী।  অন্যান্যের মধ্যে নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, সহ সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু বক্তব্য রাখেন।  দীর্ঘদিন পর নগর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ ও চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম সাংগঠনিক এ সভায় যোগ দেন এবং বক্তব্য রাখেন।

খোরশেদ আলম সুজন বাংলানিউজকে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সফরকে উৎসবমুখর রাখতে এবং সফল করতে নেতাকর্মীরা সারাদিন রাজপথে থাকবেন।  এজন্য প্রত্যেক ওয়ার্ড এবং থানাভিত্তিক নেতাদের তাদের কর্মীদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রীয় যেসব এলাকায় যাবেন এর আশপাশে অবস্থান নেয়ার জন্য বলা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সভায় একজন নেতা বলেন, প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামের উন্নয়নের দায়িত্ব নিজের কাঁধে নিয়েছেন।  এটা ভাল কথা।  কিন্তু আমরা চট্টগ্রামের আওয়ামী লীগ নেতারা প্রধানমন্ত্রীকে বলতে পারিনি, আমরা কেমন উন্নয়ন চাই, চট্টগ্রামবাসী কেমন উন্নয়ন চায় ? চট্টগ্রামে সরকারি স্কুল-কলেজ দরকার, আরও একটি হাসপাতাল দরকার।  এসব উন্নয়নের দাবি আমরা তুলতে পারিনি।

তবে সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম উন্নয়ন কাজে সহযোগিতা দেয়ায় সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীকে ধন্যবাদ জানান।  ভবিষ্যতে যে কোন সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে তিনি থাকবেন বলেও বর্ধিত সভায় অঙ্গীকার করেন।

নগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিক আদনানের সঞ্চালনায় বর্ধিত সভায় আরও বক্তব্য রাখেন নগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি সুনীল কুমার সরকার, এম জহিরুল আলম দোভাষ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম, এম এ রশিদ, সাংগঠনিক  সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, চৌধুরী, হাসান মাহমুদ হাসনী, দপ্তর সম্পাদক হাসান মাহমুদ চৌধুরী শমসের, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর, বন পরিবেশ  সম্পাদক মশিউর রহমান চৌধুরী, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক দিদারুল আলম চৌধুরী, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হাজী জহুর আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা সম্পাদক দেবাশীষ গুহ বুলবুল, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আবদুল আহাদ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আবু তাহের, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মানস রক্ষিত, উপ প্রচার সম্পাদক শহিদুল আলম, উপ দপ্তর সম্পাদক জহরলাল হাজারী।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like