ঢাকায় যাচ্ছে কক্সবাজারের ৩৯ খুদে গণিতবিদ

Prothom-alo,  26-01-16সংবাদ বিজ্ঞপ্তি, ২৬ জানুয়ারি : প্রথম আলো গণিত উৎসব গ মঙ্গলবার কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সম্পন্ন হয়েছে। সকাল ৯ টায় উৎসবের উদ্বোধন করেন, জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন।
শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন, প্রথম আলো কক্সবাজার অফিস প্রধান সাংবাদিক আব্দুল কুদ্দুস রানা।
উৎসবে বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াডের পতাকা উত্তোলন করেন ডাচ্ বাংলা ব্যাংকের কক্সবাজার শাখার ব্যবস্থাপক মো. সাজ্জাদুর রহমান, আর্ন্তজাতিক গণিত অলিম্পিয়াডের পতাকা উত্তোলন করেন কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দেবব্রত দাশ। এ সময় জাতীয় সংগীত পরিবেশন করে বন্ধুসভার সদস্যরা।
বক্তব্য দেন, কক্সবাজার পলিটেকনিক ইনষ্টিটিউটের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী প্রদীপ্ত খীসা, কক্সবাজার পিটিআইয়ের তত্ত্বাবধায়ক বেগম কামরুন্নাহার, বায়তুশশরফ জব্বারিয়া একাডেমির প্রধান শিক্ষক মো. সৈয়দ করিম, কক্সবাজার সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাম মোহন সেন।অনুষ্টান পরিচালনা করেন, বন্ধুসভার সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল।
উৎসবে জেলার ৬৩ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৬২১ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়।
উৎসবে প্রাথমিক, জুনিয়র, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক চারটি বিভাগ থেকে ৩৯ জনকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। বিজয়ীরা আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় জাতীয় গণিত উৎসবে যোগ দেবে।
বিজয়ীদের সনদ, টি-শার্ট ও মেডেল তুলে দেন, কক্সবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ একেএম ফজলুল করিম চৌধুরী। তিনি বিজয়ীদের গণিত জয়ের পথ দেখান।
বিচারক প্যানেলে ছিলেন, ঢাকা আহছান উল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিতের সহকারী অধ্যাপক ড. মো. মাসুম বিল্লাহ, ইনডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির গণিতের প্রভাষক ছিদ্দিকুর রহমান মিলন,
বদরখালী কলেজের অধ্যক্ষ একে এম ফজলুল হক, কক্সবাজার সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মফিদুল আলম, প্রভাষক নিজাম উদ্দিন ফারুকী, কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজের প্রভাষক নির্মলেন্দু শর্মা, ভোলা সরকারি কলেজের সহযোগি অধ্যাপক বিপ্লব পাল।
বিজয়ীরা হলো ঃ
# প্রাইমারী ক্যাটাগরী ঃ
চ্যাম্পিয়ন তিন জন ঃ  চকরিয়া অনুশীলন একাডেমীর আবদুল্লাহ নোমান, কক্সবাজার বায়তুশশরফ জব্বারিয়া একাডেমীর সুবায়েল তানবিন শোভা, চকরিয়া গ্রামার স্কুলের আবদুল্লাহ আল মাহফুজ।
প্রথম রানার আপ তিন জন ঃ মহেশখালী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অনুভব রুদ্র, চকরিয়া অনুশীলন একাডেমীর আদিবা জান্নাত ও আবদুল্লাহ আল নোমান।
দ্বিতীয় রানার আপ চার জন ঃ কক্সবাজার বিবেকানন্দ বিদ্যানিকেতনের সিদ্ধার্থ সুন্দরম দত্ত, রামু মেরংলোয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তাসনিম সুলতানা তুর্ণী, কক্সবাজার বিয়াম ল্যাবরেটরী স্কুলের এহসানুল হক ও অনুশীলন একাডেমীর মো. আতাউল্লাহ।
# জুনিয়র ক্যাটাগরী ঃ
চ্যাম্পিয়ন দুই জন ঃ কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের সানজানা সাফওয়াত স্বপ্নিল ও কক্সবাজার সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের রিশাত ইফতেশাম নিবিড়।
প্রথম রানার আপ ছয় জন ঃ কক্সবাজার সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের জাহিন আফতাহি, তাসিন মো. জিহাদ, সপ্তক বড়–য়া, আশেকুল মোস্তফা আবরার, চকরিয়া গ্রামার স্কুলের তারবীর হোসেন তামিম, কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের সিদরাতুল মুনতাহা বুবুন।
দ্বিতীয় রানার আপ ছয়জন ঃ কক্সবাজার সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের রাহাত ছিদ্দিক, প্রিয়ম পাল, রিদুয়ান মাহমুদ, শাহেদুর রহমান ইমু, চকরিয়া গ্রামার স্কুলের চৌধুরী মো. আদিল নেওয়াজ ও মহেশখালী সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের ফাতেমা তাসনিম ঝোমা।
# সেকেন্ডারী ক্যাটাগরী ঃ
চ্যাম্পিয়ন দুই জন ঃ কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের তাসনিম নাওয়ার ও আমেনা ছিদ্দিকা।
প্রথম রানার আপ তিন জন ঃ কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অর্পিতা চৌধুরী, কক্সবাজার সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের সৌরভ দে ও ইশমামুল হক।
দ্বিতীয় রানার আপ ছয় জন ঃ কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের রুয়েনা নাইম, কক্সবাজার সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের জাওয়াত তাহসিন, সরজিত দত্ত, সাইদুজ্জামান সিফাত, শাহেদ মো. আসিফ ও শান্ত নুর।
# হায়ার সেকেন্ডারি ক্যাটাগরী ঃ
চ্যাম্পিয়ন দুইজন : রামু কলেজের পুষ্পা চাক ও কক্সবাজার সরকারি কলেজের মুসাব সাইদ আবদুল্লাহ।
প্রথম রানার আপ দুই জন ঃ কক্সবাজার সরকারি কলেজের নাজমুস সাকিব ও  খন্দকার ইব্রাহিম রাকিব।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like