মধ্যবর্তী নির্বাচনের দাবি থেকে সরে এলো বিএনপি

বাংলামেইল : ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির একতরফা নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করার পর থেকে মধ্যবর্তী নির্বাচনের দাবি জানিয়ে আসছিল বিএনপি। কিন্তু সরকার সে দাবি তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিয়েছে। এবার সেই ‘একমাত্র’ দাবি থেকে সরে গেল দীর্ঘ দিন ক্ষমতার বাইরে থাকা দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম রাজনৈতিক দলটি।

সোমবার রাতে খালেদা জিয়ার সঙ্গে মার্কিন রাষ্ট্রদূতের বৈঠকে পর এমন ইঙ্গিতই দিলেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান।

সন্ধ্যা ৬টায় খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় বৈঠক করেন ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শিয়া ব্লুম বার্নিকাট। টানা দেড় ঘণ্টা চলে এ বৈঠক।

বৈঠক শেষে ড. মঈন খান সাংবাদিকদের বলেন, ‘অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে বাংলাদেশকে গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র হিসেবে গড়তে হবে- বৈঠকে এ নিয়েই আলোচনা হয়েছে।’

অতীত থেকে শিক্ষা নেয়া বলতে কী বুঝালেন- সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে মঈন খান বলেন, ‘গণতন্ত্র’।

তিনি বলেন, ‘মার্কিন রাষ্ট্রদূত দেখা করতে এসেছিলেন। দেড় ঘণ্টা বৈঠক হয়েছে। রাজনীতি, সমাজনীতি, অর্থনীতি, আইনশৃঙ্খলাসহ রাজনীতির সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বিশ্বায়নের রাজনীতিতে বাংলাদেশের গুরুত্ব কম না। শক্তিশালী রাষ্ট্রগুলো সারা বিশ্বের খোঁজখবর রাখে, সারাবিশ্বের সার্বিক বিষয় নিয়ে তারা চিন্তা করে।’

মধ্যবর্তী নির্বাচন নিয়ে কোনো আলোচনা হয়েছে কি না জানতে চাইলে মঈন খান বলেন, ‘নির্বাচন দেবে কি না এটা সরকারের বিষয়। আমরা ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেছি। আমরা দ্রুত একটি সুষ্ঠু নির্বাচন চাই।’

একাত্তরে শহীদের সংখ্যা বিতর্কের জেরে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদোহ মামলার প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি তো বলেছি, রাজনীতির সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে।’

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like