সাংবাদিক আলতাফ মাহমুদ আর নেই

Altaf-Mahmud

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর: বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) একাংশের সভাপতি আলতাফ মাহমুদ আর নেই।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে তার মৃত্যু হয়। তার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর।

বিএসএমএমইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক কামরুল হাসান খান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “অস্ত্রোপচারের পর তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়েছিল। গত রাতে হঠাৎ শারীরিক অবস্থা খারাপের দিকে যায়। আজ সকালে তার লাইফ সাপোর্ট খুলে নেওয়া হয়।”

সাংবাদিক আলতাফ মাহমুদের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দৈনিক ডেস্টিনির নির্বাহী সম্পাদক আলতাফ মাহমুদ ঘাড়ে প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে গত ১৪ জানুয়ারি হাসপাতালে ভর্তি হন। স্পাইনাল কর্ডে সমস্যার কারণে তার দুই পা অবশ হওয়া ছাড়াও দুই হাতেও শক্তি পাচ্ছিলেন না।

স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়ার নেতৃত্বে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের একটি দল বৃহস্পতিবার দীর্ঘ ছয় ঘণ্টা অস্ত্রোপচারের পর বলেছিলেন, তারা আশাবাদী।

কিন্তু শনিবার রাতে হঠাৎ তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয় এবং সকালে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান তার শ্যালক আত্মীয় মাসুদ রেজা।

সত্তর দশকে সাংবাদিকতায় আসা আলতাফ মাহমুদ দীর্ঘদিন সাপ্তাহিক খবরের প্রধান প্রতিবেদক ছিলেন। বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, বিশেষ করে আওয়ামী লীগের বড় বড় সমাবেশের সংবাদ সংগ্রহ করেছেন তিনি। বিভিন্ন টেলিভিশনের টকশোতেও তাকে দেখা গেছে রাজনৈতিক বিশ্লেষক হিসেবে।

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের জন্ম ইতিহাস, চট্টগ্রামের লালদিঘী মাঠের জনসভায় শেখ হাসিনার ওপর গুলিবর্ষণসহ অনেক ঐতিহাসিক ঘটনার সাক্ষী আলতাফ মাহমুদ স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বলেছিলেন, “১৯৭৫ সালে যখন জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ছবি ছাপতে গণমাধ্যম ভয় পেত, তখন আমি বঙ্গবন্ধুর ছবি বুকে নিয়ে সাহস করে সাপ্তাহিক খবরে প্রকাশ করেছিলাম।’’

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like