এবার হজে যেতে পারবেন ১১৩৮৬৮ জন: ৩০ মে’র মধ্যে টাকা জমা

hazz-macca-23.01পূর্বপশ্চিম :  চলতি বছরের হজ প্যাকেজ চূড়ান্ত করেছে সরকার। দুই ধরনের প্যাকেজের মাধ্যমে এ বছর হজে যেতে পারবেন এক লাখ ১৩ হাজার ৮৬৮ বাংলাদেশি। যা গত বছরের চেয়ে ১৪ হাজার বেশি। ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্র এ তথ্য জানায়।

জানা গেছে, এ বছর বাংলাদেশ থেকে সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যেতে পারবেন পাঁচ হাজার জন। আর বাকি এক লাখ আট হাজার ৮৬৮ জন যাবেন বেসরকারি ব্যবস্থাপনায়।

এর মধ্যে ‘প্যাকেজ-১’ এ ব্যয় হবে ৩ লাখ ৬০ হাজার ২৮ টাকা ও ‘প্যাকেজ-২’ এ ৩ লাখ ৪ হাজার ৯০৩ টাকা। এ ছাড়া মোয়াল্লেম ফি ২৪ হাজার টাকাসহ, সৌদি আরবের নিয়মে ক্যাটারিং সার্ভিস থাকছে।

প্রত্যেক হজ এজেন্সিকে টাকা জমাদানকারী হজযাত্রীর তালিকা, বিমান ভাড়া, খাওয়া খরচ ও মোয়াজ্জেম ফি’সহ অন্যান্য ফিসহ সম্ভাব্য ব্যয়ের পুরো টাকা আগামী ৩০ মে’র মধ্যে সংশ্লিষ্ট এজেন্সির ব্যাংক হিসাবে জমা দিতে হবে।

সৌদি আরবে চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১০ সেপ্টেম্বর চলতি বছরের পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ধর্ম মন্ত্রনালয় সূত্র আরও জানায়, প্যাকেজ-১ এ গত বছরের চেয়ে এবার ৫ হাজার ২৫৫ টাকা বেশি ও প্যাকেজ-২ এ ৮ হাজার ৬৯৭ টাকা বেশি গুনতে হবে হজযাত্রীদের।

এর মধ্যে সরকারিভাবে যাওয়া হজযাত্রীরা বাড়ি বা হোটেল ভেদে ভাড়ার অতিরিক্ত টাকা থাকলে ফেরত পাবেন। সরকারি-বেসরকারি উভয় প্রকার হজযাত্রীদের সৌদি সরকারের অনুমোদিত ক্যাটারিং কম্পানির মাধ্যমে তিন বেলা খাবার সরবরাহ করা হবে।

ধর্মমন্ত্রী অধ্যাপক মতিউর রহমান বলেন, বিশৃঙ্খলা এড়াতে মন্ত্রণালয় একটি সেল গঠন করেছে। এই সেল কাজ করছে।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. শহিদুজ্জামানকে প্রধান করে ৫ সদস্যের এই সেল গঠন করা হয়েছে বলে মন্ত্রনালয় জানায়।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন জানান, বাংলাদেশ বিমান ও সৌদি এয়ারলাইনস মোট হজযাত্রী পৃথকভাবে সমসংখ্যায় পরিবহন করবে।

বিমানভাড়া গতবারের মতো অপরিবর্তিত থাকছে এবং ফ্লাইট শিডিউল ঠিকসহ প্রস্তুতির কাজটিও বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ই করবে বলে জানান বিমানমন্ত্রী।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like