সরকারী বনভুমিতে দালান

pic dalan 2016উখিয়া সংবাদদাতা, কক্সবাজারটাইমসডটকম, ২০ জানুয়ারি : উখিয়ার মনখালী চাকমা পাড়া গ্রামে সরকারী বনভুমির পাহাড় কেটে দালান বাড়ী নির্মান করছে মোঃ আলী নামে এক প্রবাসী। তিনি ওই গ্রামের ছুর মোহাম্মদের ছেলে। রোহিঙ্গা শ্রমিক দিয়ে গত এক মাস ধরে দালান বাড়ী নির্মান কাজ চলছে। উক্ত প্রবাসী সম্প্রতি বিদেশ থেকে দেশে এসে হোয়াইক্যং রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা সুনিল কুমার দেবরায়, বিট কর্মকর্তা মনির ও মনখালী বিটের বিট কর্মকর্তা মোঃ ইকবাল সহ স্থানীয় বন বিভাগের কর্তা ব্যক্তিদের ম্যানেজ করে দালানবাড়ীটি নির্মান করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
জানা যায়, মনখালী চাকমা পাড়া গ্রামের ছুর মোহাম্মদের ছেলে সৌদিয়া প্রবাসী মোঃ আলী গত কয়েক বছর ধরে কক্সবাজার দক্ষিন বনবিভাগের হোয়াইক্যং রেঞ্জের আওতাধীন মনখালী চাকমা পাড়া এলাকার বিপুল পরিমান সরকারী বন ভুমি জবর দখল করে পাহাড় কেটে সমতল করে সুপারী সহ দেশীয় বিভিন্ন গাছ পালা রোপন করে উক্ত বনভুমি জোত জমি হিসাবে চালিয়ে দিয়ে দখলে রাখে। স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী লোক ও হোয়াইক্যং রেঞ্জের হেডম্যান নামধারী কতিপয় চাঁদাবাজ এসব বনভুমি দখলে সহায়তা করে থাকে। যার কারনে সরকারী বনভুমি দিন দিন বে-দখলে চলে যাচ্ছে। সরকারী বনভুমিতে দালান নির্মানের বিষয়ে সৌদি প্রবাসী মোঃ আলীর নিকট জানতে চাইলে তিনি পুরাতন বাড়ী সংস্কারের কথা স্বীকার করেন।
স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, প্রবাসী মোঃ আলী গত এক বছর আগে সরকারী বনভুমির পাহাড় কেটে বহুতল দালান বাড়ী নির্মানের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। তৎসময়ে বন বিভাগের লোকজন বাধা দেওয়ায় কাজ অর্ধেক রেখে বিদেশ চলে যায়। সম্প্রতি উক্ত ব্যক্তি বিদেশ থেকে দেশে এসে পুরুদমে দালান নির্মানের কাজ অব্যাহত রাখে। এ বিষয়ে জানার জন্য হোয়াইক্যং রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তার মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করলে মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like