সফেদার অভাবনীয় পুষ্টিগুণ

বাংলামেইল : অত্যন্ত সুস্বাদু ও পুষ্টিকর একটি ফল সফেদা। ছোট বড় সবার কাছে এটি বেশ জনপ্রিয়। সফেদার স্বাদ সম্পর্কে ধারণা থাকলেও অনেকে এর পুষ্টিগুণ সম্পর্কে পুরোপুরি জানেন না। প্রতি ১০০ গ্রাম খাদ্যযোগ্য সফেদায় রয়েছে খাদ্যশক্তি ৮৩ কিলোক্যালরি, শর্করা ১৯.৯৬ গ্রাম, আমিষ ০.৪৪ গ্রাম, ভিটামিন বি২ ০.০২ মিলিগ্রাম, ভিটামিন বি৩ ০.২ মিলিগ্রাম, ভিটামিন বি৫ ০.২৫২ মিলিগ্রাম, ভিটামিন বি৬ ০.০৩৭ মিলিগ্রাম, ফলেট ১৪ আইইউ, ভিটামিন সি ১৪.৭ মিলিগ্রাম, ক্যালসিয়াম ২১ মিলিগ্রাম, আয়রন ০.৮ মিলিগ্রাম, ম্যাগনেসিয়াম ১২ মিলিগ্রাম, ফসফরাস ১২ মিলিগ্রাম, পটাশিয়াম ১৯৩ মিলিগ্রাম, সোডিয়াম ১২ মিলিগ্রাম, জিংক ০.১ মিলিগ্রাম। আজ জেনে নেব, সফেদার অভাবনীয় পুষ্টিগুণ সম্পর্কে।

– সফেদায় থাকা ক্যালসিয়াম, আয়রন ও ফসফরাস আমাদের দেহের হাড়ের গঠন মজবুত করে।

– সফেদার বীজের নির্যাস কিডনির রোগ সারাতে দারুণ কার্যকরী।

– সুলভে প্রাপ্ত সফেদা কাশি উপশমে সাহায্য করে।

– শ্বাসকষ্ট দূর করতে সফেদার খুবই কার্যকরী। আমাদের ফুসফুস ভালো রাখতেও এর ভূমিকা অসাধারণ।

– সফেদার অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান প্রদাহজনিত সমস্যা সমাধান করে। এসব উপাদান গ্যাসট্রিটিস ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সাহায্য করে।

– সফেদায় থাকা ভিটামিন এ চোখের দৃষ্টি সুরক্ষা করে। রাতকানা রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমায়।

– আধাপাকা সফেদা পানিতে ফুটিয়ে কষ বের করে খেলে ডায়রিয়া ভালো হয়।

– নিয়মিত সফেদা খেলে স্থুলতা জনিত সমস্যার সমাধান হয়।

– সফেদায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে গ্লুকোজ যা আমাদের শরীরে শক্তি যোগায়।

– সফেদা গাছের পাতায় রয়েছে ওষুধের গুণ। সফেদা গাছের পাতা ছেঁচে সদ্য ক্ষত হওয়া স্থানে দিলে দ্রুত রক্তপাত বন্ধ হয়।

– সফেদা ফল স্নায়ু শান্ত এবং মানসিক চাপ উপশম করে। অনিদ্রা, উদ্বেগ এবং বিষণ্ণতা তাড়াতে রিয়মিত সফেদা খেতে পারেন।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like