রোহিঙ্গা শুমারীতে সহযোগিতার আহবান

Ruhingaসংবাদ বিজ্ঞপ্তি, ১৭ জানুয়ারি : পরিসংখ্যান ব্যুরোর কক্সবাজার স্টাটিস্টিক অফিসের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ওয়াহিদুর রহমান সরকারের উদ্যোগে পরিচালিত রোহিঙ্গা শুমারীতে সহযোগিতার আহবান জানিয়েছেন।
আরাকানী রোহিঙ্গা শরনার্থী কল্যাণ পরিষদের নেতৃবৃন্দ রোববার দুপুরে কক্সবাজার শহরের কালু দোকানস্থ তার অফিসে গেলে তাদের তিনি এ কথা বলেন।
এসময় কক্সবাজার জেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তা বলেন, রোহিঙ্গাদের সংগঠিত করে নিবন্ধনের আওতায় আনার সিদ্ধান্ত সময়োপযোগী। এ কাজে সকলের সহযোগিতা দরকার। ইতিপূর্বে জেলার ৪ স্থানে রোহিঙ্গা মাঠ জরিপ চালানো হয়েছিল। গ্রামে অবস্থানরত রোহিঙ্গারা নিবন্ধিত হওয়ার আন্তরিকতা দেখালেও শহরকে›দ্রিক বসবাসরত রোহিঙ্গারা নিজেদের পরিচয় লুকিয়ে রাখে। এবারের শুমারীতে এলাকাভিত্তিক তালিকা তৈরী করে সকল রোহিঙ্গাকে নিবন্ধনের আওতায় আনার ব্যবস্থা করা হবে।
ওই সময় আরাকানী রোহিঙ্গা শরনার্থী কল্যাণ পরিষদের পক্ষে জানানো হয়, দীর্ঘদিন যাবৎ বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের নিয়ে একটি রাজনৈতিক-অর্থনৈতিক-সাংস্কৃতিক এমনকি আন্তর্জাতিক জটিলতা অতিক্রম করছে। ‘রোহিঙ্গা’ ইস্যুটি দীর্ঘদিন অমীমাংসিত থাকায় বাংলাদেশ সরকারও বেকায়দায়। এটির সঠিক সুরাহা প্রয়োজন। এ জন্য সরকারের রোহিঙ্গা শুমারীতে সম্মিলিত উদ্যোগ ও আন্তরিকতা দরকার। তাই তারা শুমারীতে নানাভাবে সহযোগিতার আশ্বাস দেন নেতৃবৃন্দ।
এসময় উপস্থিত ছিলেন আরাকানী রোহিঙ্গা শরনার্থী কল্যাণ পরিষদের সভাপতি এডভোকেট নুরুল আমিন, সহ-সভাপতি মাস্টার আব্দুর রহিম, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার শাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ ছিদ্দিক, সদস্য মুহাম্মদ হায়াত, সিরাজুল মোস্তফা, মোস্তফা কামাল, লালূ বিবি, সেলিনা আকতার প্রমুখ।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like