বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাত আজ

train1452972273রাইজিংবিডি : টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে আজ রোববার অনুষ্ঠিত হবে তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাত। আর এ  আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এবারে বিশ্ব ইজতেমা। দ্বিতীয় পর্বেও তিন দিনব্যাপী ইজতেমা হয়।

সকাল ১১টার দিকে আখেরি মোনাজাত শুরু হবে এবং তাবলিগ জামাতের শীর্ষস্থানীয় মুরব্বি ভারতের মাওলানা মুহাম্মদ সা’দ আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন বলে জানিয়েছেন বিশ্ব ইজতেমার আয়োজক কমিটির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মো. গিয়াস উদ্দিন।

এবারের বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয়ধাপে অংশ নিচ্ছেন বিদেশি মুসল্লির পাশাশি ঢাকাসহ দেশের ১৬ জেলার তাবলিগ জামাতের মুসল্লিরা। পবিত্র হজের পর মুসলিম বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম এ জামায়েত অংশ নিতে কয়েক লাখ দেশি-বিদেশি ধর্মপ্রাণ মুসল্লি বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে অবস্থান নিয়েছেন। গত দুই দিন শুনছেন তাবলিগ জামাতের শীর্ষস্থানীয় মুরব্বিদের ঈমান, আমল, আখলাকসহ ইসলাম ধর্মের ছয় উছুলের বয়ান। ইজতেমা ময়দান ও ময়দানের আশপাশ এলাকায় যতদূর চোখ যায় শুধু মুসল্লি আর মুসল্লি। ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের পদচারণায় শিল্পশহর টঙ্গী পূণ্যভূমিতে পরিণত হয়েছে।

বিশ্ব ইজতেমার শেষ দিন আজ রোববার ময়দানে অনুষ্ঠিত হবে আখেরি মোনাজাত। আখেরি মোনাজাতে শরিক হতে তাবলিগ জামাতের মুসল্লিদের পাশাপাশি ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে লোকজন ইজতেমা ময়দানে আসছেন। অনেকে শনিবার এসে পৌছেছেন টঙ্গীতে। অনেকে অবস্থান নিয়েছেন টঙ্গী ও আশপাশ এলাকার আত্মীয়-স্বজনের বাড়িতে। আখেরি মোনাজাতের আগ পর্যন্ত ইজতেমামুখী মানুষের ঢল অব্যাহত থাকবে।

বিদেশি মুসল্লি: পুলিশ কন্ট্রোল রুম সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয়ধাপের দ্বিতীয় দিন পর্যন্ত বিশ্বের ৯৬টি দেশের  ৬ হাজার ৫১৮ জন মুসল্লি ইজতেমায় অংশ নিয়েছেন। বিদেশি মুসল্লিদের জন্য ইজতেমা ময়দানে উত্তর-পশ্চিম পাশে তৈরি করা হয়েছে বিদেশি নিবাস।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা: পুরো ইজতেমা এলাকায় রয়েছে র‌্যাব পুলিশের নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা। পাঁচটি স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা দিয়ে পুরো ইজতেমা ময়দানকে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে। বিদেশি নিবাসসহ খিত্তায় খিত্তায় রয়েছে সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য। এ ছাড়া ইজতেমা ময়দানের প্রবেশপথ ও সড়ক-মহাসড়কসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে মোতায়েন রয়েছে পুলিশ, স্থাúন করা হয়েছে চেকপোস্ট। ওয়াচটাওয়ার, সিটি টিভি, নৌ-টহল, হেলিকক্টর টহলের মধ্যমে নিরাপত্তা ব্যবস্থা মনিটরিং করা হচ্ছে।

যানচলাচলে নিষেধাজ্ঞা ও ফ্রি বাস সার্ভিস: আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে ইজতেমামুখী সড়ক-মহাসড়কে যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ এবং মোনাজাত শেষে মুসল্লিদের বাড়ি ফেরার জন্য  ফ্রি বাসের ব্যবস্থা করেছে গাজীপুর জেলা পুলিশ। গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ সাংবাদিকদের জানান, আখেরি মোনাজাতের দিন তাবলিগ জামাতের লাখ লাখ মুসল্লির পাশাপাশি ঢাকাসহ আশপাশ এলাকা থেকে মানুষ আসেন। তখন ভিড় বেড়ে যায় এবং রাস্তায় যানজট সৃষ্টি হয়। সে কারণে আখেরি মোনজাতের দিন রোববার ভোর ৩টা থেকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের চান্দনা চৌরাস্তা (ভোগড়া বাইপাস) থেকে আব্দুল্লাহপুর পর্যন্ত এবং টঙ্গী ঘোড়াশাল সড়কে মিরেরবাজার থেকে স্টেশন রোড পর্যন্ত, স্টেশন রোড থেকে কামারপাড়া সড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। এ সময় রাস্তার দুই পাশে কোনো যানবাহনকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেওয়া হবে না। যাতে মানুষ আখেরি মোনাজাতের জন্য আসতে পারে, মুসল্লিরা নির্বিঘেœ চলাচল করতে পারে এবং মোনাজাত শেষে বাড়ি ফিরতে পারে- সে জন্য এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। রোববার সন্ধ্যা পর্যন্ত এ বিধিনিষেধ বলবৎ থাকবে।
তিনি আরো জানান, আখেরি মোনাজাতের শেষে মুসল্লিদের বাড়ি ফেরার সুবিধার্থে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ৩০টি ফ্রি সাটল বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। মুসল্লিরা বিনা ভাড়ায় এসব বাসে যাতায়ত করতে পারবেন।

বিশ্ব ইজতেমার প্রচলন: ১৯৪৬ সালে প্রথম কাকরাইল মসজিদে ইজতেমার আয়োজন করা হয়। এরপর ১৯৪৮ সালে চট্টগ্রামের হাজি ক্যাম্পে ও ১৯৫৮ সালে নারায়নগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর লোকসংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় ১৯৬৬ সালে টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে স্থানান্তর করা হয়ে। এখানে সরকারের পক্ষ থেকে ১৬০ একর জমি স্থায়ীভাবে ইজতেমার জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়। মুসল্লিদের স্থান সংকুলানসহ অংশগ্রহণকারীদের বিভিন্ন অসুবিধার কথা বিবেচনা করে ২০১১ সাল থেকে দেশের ৬৪ জেলার মুসল্লিদের নিয়ে দুই ধাপে আয়োজন করা হয় বিশ্ব ইজতেমা। একই কারণে এ বছর থেকে দেশের ৩২ জেলার মুসল্লিদের নিয়ে দুই ধাপে অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমা। এ বছর দেশের যেসব জেলার মুসল্লিরা বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিচ্ছেন তার আগামী বছরের ইজতেমায় অংশ নিতে পারবেন না। আগামি বছরের বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নেবেন বাকি (এ বছর অংশ না নেয়া) ৩২ জেলার মুসল্লিরা।

 

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like