সানি লিওনকে দেখেই উঠে বসলেন মৃত ব্যক্তি!

2016_01_15_13_57_33_sAlkvaY1UcgJB31BZ6lUMlTiERr5nQ_originalবিনোদন ডেস্ক : সানি লিওন মানেই একটা টান টান উত্তেজনা আর যৌনতায় সুড়সুড়ি। তার ছবি দেখলে চোখ তো সেদিকে যাবেই। চলচ্চিত্রে যে তাকে সেভাবেই ব্যবহার করা হয়। কিন্তু মৃত ব্যক্তি যখন সানি লিওনকে দেখে উঠে বসেন তখন? আশ্চর্য হবেন না, এমনই হয়েছে ‘মাস্তিজাদে’তে।

২৩ ডিসেম্বর মুক্তি পেয়েছে সানি লিওন ও তুষার কাপুর অভিনীতি ছবি ‘মাস্তিজাদে’র ট্রেলার। ট্রেলার মুক্তির পরই ভারতজুড়ে সমালোচনা রীতিমত ঝড় বইছে। সেক্স কমেডির নামে যে অশ্লীলতার ফুলঝুড়ি দেখা গেছে ট্রেলারে তার জবাব দিয়েছেন ছবির অন্যতম অভিনেত্রী সানি লিওন।

জানা গেছে, ‘মাস্তিজাদে’র ট্রেলার প্রকাশের পর পরই ফের আলোচনায় আসেন সানি লিওন। দীর্ঘদিন ভারতীয় সেন্সর বোর্ডে স্বীকৃতির জন্য ছবিটি আটকে থাকার পর গত অক্টোবরে অ্যাডাল্ট সার্টিফিকেট দিয়ে প্রদর্শনের জন্য ছাড়পত্রও দেয়া হয়। শুরুতে ছবিটিকে ‘সেক্স কমেডি’ বলা হলেও ট্রেলার প্রকাশের পর এটা নিয়ে উঠে তর্ক বিতর্ক।

ছবিটিকে শুধু প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য উল্লেখ করে সানি পরিষ্কার ভাষায় বলেন, ‘আমি সবার উদ্দেশে “মাস্তিজাদে” নিয়ে বলতে চাই, এটা সেক্স কমেডি নয়, এটি একটি অ্যাডাল্ট কমেডি। এবং এটা শুধুই প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্যই। আর এটা নিয়ে সমালোচনারও কিছু নেই। সেন্সর বোর্ড আমাদের অ্যাডাল্ট সার্টিফিকেট দিয়েছে, এটা তাদের দায়িত্ব ছিল। এখন আমরা শুধু আমাদের প্রমোশন নিয়ে কাজ করছি।’

সম্প্রতি ছবির একটি ডায়ালগ প্রোমো মুক্তি পেয়েছে। সেখানে দেখা গেছে একটি মৃতদেহ বয়ে নিয়ে যাচ্ছেন জনাচারেক ব্যক্তি। হঠাৎই রাস্তায় দেখা সানি লিওনের। গাড়ি থেকে বেরিয়ে রাস্তায় পড়ে থাকা কিছু একটা তুলছেন তিনি। আর তা দেখেই বৃদ্ধ শববাহক বলে উঠলেন, যদি তিনি ৪০ বছর ছোটো হতেন…। তারপর মৃতব্যক্তি নিজেই উঠে বসলেন। বললেন, ‘যদি আমি বেঁচে থাকতাম…।’

উল্লেখ্য, ভারতের বিতর্কিত রিয়েলিটি শো ‘বিগ বস’-এর পঞ্চশ আসরে পা রাখার মধ্য দিয়ে বলিউডে যাত্রা করেন ইন্দো-কানাডিয়ান অভিনেত্রী সানি লিওন। এরপর জিসম-২ ছবিতে প্রথমবার অভিনয় করেন তিনি। চলতি বছরে তার এক পেহলি লীলা এবং কুচ কুচ লোচা হ্যায় নামে দুটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। তার অভিনীত ভারতের প্রথম অ্যাডাল্ট কমেডি ছবি ‘মাস্তিজাদে’ ২৯ জানুয়ারি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। মিলাপ জাবেরির নির্মাণে ছবিতে সানি লিওন ছাড়াও আছেন তুষার কাপুর ও বীর দাস।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like