অাখেরি মোনাজাতে শেষ হল বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব

বাংলামেইল:  শেষ হল মুসলমান বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম জমায়েত বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। ১৫ থেকে ১৭ জানুয়ারি ফের ৫০তম এই বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব চলবে।

রোববার সকাল ১১টায় মোনাজাত শুরু করেন তাবলীগ জামাতের শীর্ষ মুরুব্বি ও দিল্লির মাওলানা মোহাম্মদ সা’দ। আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে লাখো মানুষের ঢল নেমেছে গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগ তীরে।

মোনাজাত পরিচালনাকার মাওলানা সাদের দাদা মাওলানা ইউসুফ আলীও তাবলিগের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। সাদ ২০১৫ সালের বিশ্ব ইজতেমায় সর্বপ্রথম আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন।

এর আগে ভোরে ফজরের নামাজের মাধ্যমে শেষ দিনের কর্মসূচি শুরু হয়। আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে ভোর থেকেই শীত উপেক্ষা করে লাখো লাখো মুসুল্লী মহাসড়কে হেঁটে ও ট্রেনে করে টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে এসে সমবেত হয়েছেন। বিপুল সংখ্যক নারী মুসুল্লিরাও মোনাজাতে অংশ নিতে ইজতেমার আশপাশের সড়কে সকাল থেকেই অবস্থান নিয়েছেন। ভোর থেকেই মুসল্লিরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে খবরের কাগজ বিছিয়ে মোনাজাতের জন্য বসে পড়েছেন। এ সময় তারা ইসলামের আমল, আকীদা ও দাওয়াত বিষয়ে দেশি-বিদেশি মুসুল্লিদের বয়ান শুনছেন। বয়ান করছেন ভারতের মুরব্বি ওয়াসেকুল ইসলাম।

আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা। ৫ স্তর বিশিষ্ট নিরাপত্তার ব্যবস্থার পাশাপাশি অতিরিক্ত আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য মোতায়েন রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে জেলা পুলিশ।

এদিকে মুসুল্লিদের নির্বিঘ্নে যাতায়াত সুবিধার জন্য টঙ্গী জংশন থেকে ২৩টি বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ভোর থেকে মোনাজাত শেষ না হওয়া পর্যন্ত ইজতেমা পাশের সড়কে গণপরিবহন চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।

টঙ্গী স্টেশনের স্টেশন মাস্টার মো. হালিমুজ্জামান জানান, মুসল্লিদের যাতায়াতের সুবিধার্থে আখেরি মোনাজাতের দিন ২৩টি বিশেষ ট্রেন এবং সব ট্রেনে অতিরিক্ত বগি সংযোজনসহ ১১১টি ট্রেন টঙ্গী স্টেশনে যাত্রা বিরতির ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like