চট্টগ্রামে দুই ধর্ষকের দু’বার যাবজ্জীবন

Law_373272961বাংলানিউজ : তরুণীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের হওয়া একটি মামলায় দুই আসামিকে দুইবার করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।  একই রায়ে আদালত তাদের দেড় লক্ষ টাকা করে জরিমানা দেয়ারও আদেশ দিয়েছেন।
মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) চট্টগ্রামের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক মো.রেজাউল করিম এ রায় দিয়েছেন।
দণ্ডিত দু’জন হল, বাঁশখালী উপজেলার মধ্যম ইলশা গ্রামের মৃত আবদুল্লাহর ছেলে মামুনুর রশিদ (২৭) ও জামালের ছেলে দেলোয়ার হোসেন (২৭)।  তারা দু’জনই বর্তমানে পলাতক আছে।
ট্রাইব্যুনালের পিপি অ্যাডভোকেট জেসমিন আক্তার রায়ের বিষয়টি জানিয়েছেন।
সূত্র জানায়, ধর্ষিতা তরুণীর বাড়ি বাঁশখালীর বৈলগাঁও এলাকায়।  ২০১০ সালের ২০ অক্টোবর সন্ধ্যা ৬টার দিকে মামুনুর ও দেলোয়ার বৈলগাঁও মরিয়ম খাতুনের বাড়ির সামনে থেকে তরুণীকে জোরপূর্বক সিএনজি অটোরিক্সায় তুলে নেয়।  এরপর তাকে নগরীর একটি হোটেলে এনে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করে।
এ ঘটনায় তরুণীর ভাই বাদি হয়ে ২২ অক্টোবর বাঁশখালী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।  ২০১১ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ।  ২০১২ সালের ৮ আগস্ট আসামিদের বিরুদ্ধে আদালত অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন।  মোট ১৫ জন সাক্ষীর মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষ ৫ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করে।
আদালত অপহরণের দায়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৭ ‍ধারায় দু’জনকে যাবজ্জীবন ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।
ধর্ষণের দায়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯ (৩) ‍ধারায় দু’জনকে যাবজ্জীবন ও এক লক্ষ টাকা জরিমানা করেন।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Like